ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে ‘‘নিঃশর্ত সম্মাননা পুরস্কার” প্রবর্তন

ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে ‘‘নিঃশর্ত সম্মাননা পুরস্কার” প্রবর্তন

0 213
ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ট্রাস্টিবোর্ডের চেয়ারম্যান মোঃ সবুর খান কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষার্থী এস. এম ফিরোজ আহমেদের হাতে, নৈতিকতা ও মানবিক মূল্যবোধ উত্তরনে এবং সমাজ ও পরিবারে অসামান্য অবদানের জন্য ‘‘নিঃশর্ত সম্মাননা পুরস্কার” তুলে দিচ্ছেন।

শিক্ষার্থীদের নৈতিকতা ও মানবিক মূল্যবোধ উত্তরনে এবং সমাজ ও পরিবারে অসামান্য অবদানের জন্য ‘‘নিঃশর্ত সম্মাননা পুরস্কার” প্রবর্তন করেছে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি। গত ০২ সেপ্টেম্বর ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষার্থী এবং মোঃ আবদুল করিম ও ফিরোজা করিমের সুযোগ্য সন্তান এস. এম ফিরোজ আহমেদের হাতে এ পুরস্কার তুলে দেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রাস্টিবোর্ডের চেয়ারম্যান মোঃ সবুর খান।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন দেশবরেণ্য সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ও ইন্টারন্যাশনাল থিয়েটার ইনস্টিটিউট এবং সম্মিলিত সাংস্কুতিক জোটের সভাপতি নাসির উদ্দিন ইউসুফ বাচ্চু, খ্যাতিমান সাংবাদিক আনিস আলমগীর ও জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপ-উপাচার্য প্রফেসর আফসার আহমেদ।

অনুষ্ঠানে প্রতিক্রিয়া প্রকাশ করে এস এম ফিরোজ আহমেদ বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে পরিচালিত আর্ট অফ লিভিং কোর্সটিই আমাকে এ মানবিক মূল্যবোধ ও দায়িত্ববান হতে অনুপ্রানিত করেছে। একজন তরুণ শিক্ষাার্থী হয়েও তিনি তার অসুস্থ বাবা-মা’র প্রতি অত্যন্ত দ্বায়িত্বশীলতা এবং মানবিক মূল্যবোধের যে পরিচয় দিয়েছেন যা তার ভবিষ্যৎ জীবনের উন্নতি এবং সাফল্যের নির্দেশক হিসেবে কাজ করছে। ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি বিশ্বাস করে, একজন মানুষকে পরীশীলিত করে প্রকৃত ও দায়িত্ববান মানুষরুপে গড়ে তুলতে শিক্ষার যৌক্তিকতা অনুধাবন করতে এই সম্মাননা তাকে সহায়তা করবে। একজন সৎ ও আদর্শ সন্তান সবসময়ই বাবা-মায়ের গর্ব এবং এ ধরনের শিক্ষার্থীদের ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি সর্বদা অভিনন্দন ও সম্ভাষণ জানিয়ে আসছে এবং সম্মানিত করছে।

ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি বিশ্বাস করে প্রত্যেক মানুষের জীবনে বেঁচে থাকার কৌশল অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ন এবং তা পরিবার থেকেই শুরু হয়। পরিবারই হচ্ছে টেকসই ও উন্নত জীবন, নৈতিকতা এবং নিঃশর্ত ভালবাসা শিক্ষালাভের বিদ্যাপীঠ। ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির স্টুডেন্টস এফেয়ার্স বিভাগ সমাজে এবং পরিবারে বিশেষ অবদানকৃত এ ধরনের শিক্ষাার্থীদের চিহ্নিত করে তাদের যথাযথ সম্মাননা প্রদানের কার্যক্রম ধারাবাহিকভাবে চালিয়ে আসছে।
অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির উপাচার্য প্রফেসর ড. ইউসুফ এম. ইসলাম, উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. এম. গোলাম রহমান, এমিরিটাস প্রফেসর ড. আমিনুল ইসলাম, পরিচালক (স্টুডেন্ট এফেয়ার্স) সৈয়দ মিজানুর রহমান রাজু, বিভিন্ন অনুষদের ডীন এবং রেজিস্ট্রার প্রফেসর ড. প্রকৌশলী এ. কে. এম ফজলুল হক।

NO COMMENTS

Leave a Reply